স্মৃতিশক্তি ধারালো হয় যে খাবারে

বেশিরভাগ বাবা-মা চিন্তিত থাকেন কিভাবে তাদের সন্তানের ব্রেইন উন্নত করা জায়।মূলত উন্নত পুষ্টি মানের খাবার এর মধ্যে বিশেষ ভুমিকা রাখে।সবুজ সবজি বিশেষ করে মরিচ, বিট পালং এবং বেরি ফলের মধ্যে প্রচুর পরিমান ক্যারোটিন এবং এন্থোসায়ানিন, এন্টি-অক্সিডেন্ট পিগমেন্ট থাকে যেগুলো স্মৃতিশক্তিকে প্রখর করে। সবজিতে থাকা এন্টি-অক্সিডেন্ট মস্তিস্ককে এই ধরনের ক্ষতি থেকে রক্ষা করে।

এছাড়া মটরশুটিতে থাকে ফোলিক অ্যাসিড। এটি নিউরোট্রান্সমিটার উৎপাদনে সহায়তা করে। যেটা মস্তিস্কে রাসায়নিক সংবাদ বাহক হিসেবে কাজ করে।স্যালমন, স্যারডিনস, ম্যাকরল মাছে প্রচুর ফ্যাট থাকে। গবেষণায় দেখা গেছে, এই ফ্যাট মস্তিস্কের স্মৃতিভ্রম দূরীকরনে এবং আলজেইমার’স রোগের ঝুকি হ্রাস করে। প্রতি সপ্তাহে খাদ্যতালিকায় একবার এই মাছগুলো রাখা উচিত।

মাছ ছাড়াও বাদাম, শন বীজ এবং শ্বেত বীজের মধ্যেও ওমেগা-৩ ফ্যাট পাওয়া যায়।যেসব খাবারে আশ থাকে তা ব্রেইনকে কার্যকরী শক্তি দেয়।গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন সর্বোচ্চ ৫০০ মিলিগ্রাম অথবা পাঁচ কাপের সমান কফি গ্রহণ করলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে।