ফাইনালে টটেনহ্যাম

    ব্রেন্টফোর্ডকে হারিয়ে টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠলো টটেনহ্যাম হটস্পার। হোসে মরিনিয়ো শিষ্যরা ব্রেন্টফোর্ডকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ।  ইপিএলে শেষ ম্যাচে লিগ কাপের সেমফাইনালে লিডস ইউনাইটেডকে ৩-০ গোলে হারা হয় । আগের চার ম্যাচের দুইটি হার আর দুইটি ড্রয়ে নিয়ে মোটেও নিরাপদ স্থানে ছিল না স্পাররা। টটেনহ্যাম নিজেদের মাঠে খেলা শুরু হতেই যেন দারুণ ছন্দ দেখাতে থাকে ও অভিজ্ঞদের চেনা যায়। অতিথিদের চাপে রেখে, হটস্পার স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই ছন্দে টটেনহ্যাম।আর এই ছন্দের ফলটাও আসে খেলা শুরু হওয়ার প্রথম ১২ মিনিটে। দারুণ একটা গোল উপহার দেয় মৌসা সিসিওকোর আর এই গোলের মাধ্যমে ব্যবধান ১-০ হয়ে যায় । আর কোনো গোল না হওয়ায় ১-০ গোলের ব্যবধান নিয়ে দু’দল বিরতিতে যায় ।
   বিরতির পর দারুণ ছন্দে  ঘুরে দাঁড়িয়েছিল প্রতিপক্ষ, বিরতির ১৫ মিনিটে পর এক গোল করেছিল ব্রেন্টফোর্ড। কিন্তু রেফারি সেই গোল বাতিল করে দেয় ভিএআরের।  বিরতির ঠিক ২০ মিনিট পর সন হিউমিন নিজের ঝলক দেখায়। মাঝ মাঠ থেকে নিজের একক প্রচেষ্টায় মৌসুমের ১৬ নম্বর গোলটা করেন সন হিউমিন আর লিড দাঁড়ায় ২-০। ব্রেন্টফোর্ডের ২ গোল খেয়ে যেন মাথা খারাপ হয়ে যা পাগলের মতো খেলতে থাকে । এলোমেলো ফুটবল খেলতে থাকে আর ফাউল করতে থাকে। আর এর ফল আসে খেলার সময় যখন ৮৪ মিনিটেই, দ্যা সিলভা লাল কার্ড খেয়ে মাঠ থেকে উঠে যায়। ব্রেন্টফোর্ডের ১০ জনের দলে পরিণত হয়।
   ব্রেন্টফোর্ডের একাধিক বদলি এনেও একটা গোল পরিশোধ করতে পারেনি। রেফারির লম্বা বাঁশিতে খেলা শেষ হয়, আর হোসে মরিনিয়ো শিষ্যরা ২-০ গোলের জয় নিয়েই ফাইনালের টিকিট কেটে মাঠ ছাড়ে।