প্রতিষেধক নেবেন না ইয়োহান ব্লেক

অলিম্পিক্সে যাওয়ার জন্য কোনও মতেই প্রতিষেধক নিতে রাজি নন ইয়োহান ব্লেক। জামাইকার স্প্রিন্টার জানিয়েছেন, অলিম্পিক্সে তাঁকে অংশগ্রহণ করতে না দেওয়া হলেও কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু প্রতিষেধক তিনি নেবেন না। টোকিয়ো অলিম্পিক্স সুষ্ঠুভাবে করার জন্য ক্রীড়াবিদদের প্রতিষেধক দেওয়ার চেষ্টা করছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটি (আইওসি)।

কিন্তু অনেক ক্রীড়াবিদই তাতে বেঁকে বসেছেন। সেই তালিকায় নতুন সংযোজন উসেইন বোল্টের প্রাক্তন সতীর্থ ব্লেক। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে ব্লেক বলেছেন, মানসিক ভাবে আমি এখনও অনেক শক্তিশালী। আমি কোনও প্রতিষেধক চাই না। প্রতিষেধক না নেওয়ার ফলে যদি অলিম্পিক্স ছাড়তে হয়, তাতেও আমি রাজি। কিন্তু প্রতিষেধক আমি নেব না। নির্দিষ্ট কিছু কারণ আছে বলেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তবে কী কারণ, তা খোলসা করেননি তিনি। তবে আইওসি-র নিয়ম অনুযায়ী, প্রতিষেধক না নিলেও ব্লেকের টোকিয়ো অলিম্পিক্সে অংশগ্রহণ করা আটকাবে না। আইওসি আগেই জানিয়েছে, প্রতিষেধক নেওয়ার ব্যাপারে তারা ক্রীড়াবিদদের ‘উৎসাহ’ দিতে পারে। কিন্তু তাঁরা নেবেন কি না, সেটা একান্তই ক্রীড়াবিদদের নিজস্ব ব্যাপার। নিজের সিদ্ধান্তের স্বপক্ষে একটি ভিডিয়োও পোস্ট করেছেন ব্লেক। যেখানে লিখেছেন, “নিজের মনকে অনুসরণ করো, লোকের আওয়াজকে নয়।