পরিচয়পত্র দেখতে চওয়ায় হেয় পুলিশ

বাংলাদেশ পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন দাবি করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) সহযোগী অধ্যাপক সাঈদা শওকত করোনার সংক্রমণ রোধে সরকারি আদেশ বাস্তবায়নের সময় মাঠপর্যায়ে কর্মরত পুলিশের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছেন। পুলিশ এক চিকিৎসকের গাড়ি আটকে পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে উত্তেজিত হয়ে যান তিনি।

এ বিষয় দুই পক্ষের দই রকম দাবি। একটি পক্ষের দাবি, চিকিৎসকের গাড়িতে লকডাউনের সময় হাসপাতালে কাজ করার আদেশনামা ছিল, পরনে অ্যাপ্রোন ছিল এবং গাড়িতে হাসপাতালের স্টিকার লাগানো ছিল তার পরেও তাকে ইচ্ছা করে হয়রানি করা হয়েছে। অপর পক্ষের দাবি, চিকিৎসক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশকে ‘তুই’ বলে সম্বোধন করেছেন এবং গালি দিয়েছেন। সোমবার পুলিশ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন তাদের বিবৃতিতে বলেছে, জনৈক চিকিৎসকের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য তাঁকে পরিচয়পত্র দেখাতে বলা হয়েছিল। এ সময় তিনি অত্যন্ত অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। তিনি শুধু ওই পুলিশ সদস্যদের অপমান করেননি, গোটা পুলিশ বাহিনীকে কটাক্ষ ও হেয় করেছেন।