টি-টেন লিগে বাংলাদেশি খেলোয়াড়ও খেলবেন

নতুন বছরের শুরুতে মাঠে গড়াবে আবুধাবি টি-টেন লিগ। তার আগে বুধবার হয়েছে ক্রিকেটের সবচেয়ে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের এই টুর্নামেন্টের ড্রাফট। আসন্ন টি-টেন লিগের ড্রাফট থেকে দল পেয়েছেন বাংলাদেশের ছয় ক্রিকেটার। অনুষ্ঠিত ড্রাফটে বাংলাদেশিদের মধ্যে সবার আগে ডাক পান মোসাদ্দেক হোসেন । আরও অন্যান্যরা হলেন— তাসকিন আহমেদ, নাসির হোসেন, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মুক্তার আলী ও মাহেদী হাসান।

এই অলরাউন্ডার সবশেষ খেলেছেন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে, গত ১৬ মার্চ। ওই ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের হয়ে তিনি ফিফটি করেছিলেন ও ১ উইকেট নিয়েছিলেন। এই দলের আইকন ক্রিকেটার শ্রীলঙ্কান অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা। দলে আরও আছেন মোহাম্মদ আমির, স্যাম বিলিংস, চামারা কাপুগেদেরা, অজন্তা মেন্ডিসরা। দুই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান ও আফিফ হোসেন আছেন বাংলা টাইগার্স দলে। শ্রীলঙ্কান পেসার ইসুরু উদানা এই দলের আইকন ক্রিকেটার। অন্যদের মধ্যে আছেন আন্দ্রে ফ্লেচার, জনসন চার্লস, ডেভিড ভিসা, মুজির উর রহমান, কাইস আহমেদরা।

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের খেলা নির্ভর করবে বোর্ডের অনাপত্তিপত্র পাওয়ার ওপর। এই টুর্নামেন্ট চলার সময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল থাকবে বাংলাদেশ সফরে। ওয়ানডে সিরিজ শেষে টেস্ট সিরিজ থাকবে ওই সময়টায়। টেস্ট সিরিজের জন্য বাংলাদেশ দলের বিবেচনায় তাসকিন ও মোসাদ্দেক থাকতে পারেন।  টুর্নামেন্টের অন্যান্য দলে উল্লেখযোগ্য ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেন ক্রিস গেইল, লুক রাইট, অ্যালেক্স হেলস, সুনিল নারাইন, কাইরন পোলার্ড, রবি রামপল, কলিন ইনগ্রাম, ইমরান তাহির, শহিদ আফ্রিদি, সামিত প্যাটেল, ক্রিস জর্ডান, টম ব্যান্টন, ডোয়াইন ব্রাভো, মোহাম্মদ নবি, এভিন লুইস, ফিদেল এডওয়ার্ডস, আন্দ্রে রাসেল, নিকোলাস পুরান, ওয়াহাব রিয়াজ, লেন্ডল সিমন্সের মতো তারকারা।

২০২১ সালের ২৮ জানুয়ারি শুরু হবে এবারের এই টি-টেন লিগের আসর। যদিও এই টুর্নামেন্ট মাঠে গড়ানোর কথা ছিল ২০২০ সালের নভেম্বরে। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সেটি সম্ভব হয়নি। তাই দুই মাস পিছিয়ে জানুয়ারিতে শুরু হতে যাচ্ছে এই টুর্নামেন্ট। ২৮ জানুয়ারি শুরু হয়ে টি-টেন লিগ শেষ হবে ৬ ফেব্রুয়ারি। এবারো যথারীতি ১০ দিনে শেষ হবে এই আয়োজন। আর মানা হবে যথাযথ