ঘরের মাঠে চেলসিকে রুখে দিল ক্রাসনোদার

ঘরের মাঠে শুরু থেকে বলের দখলে এগিয়ে থাকলেও চেলসির আক্রমণে তেমন ধার ছিল না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গ্রুপ পর্বের শেষটা সুখকর হলো না চেলসির। নিয়মিত একাদশের অনেককে ছাড়া খেলতে নেমে হোঁচট খেয়েছে তারা। ইংলিশ দলটিকে তাদের মাঠেই রুখে দিয়েছে ক্রাসনোদার। গত মঙ্গলবার স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে ‘ই’ গ্রুপের ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়। রেমি কাবেলার গোলে পিছিয়ে পড়ার পর স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান জর্জিনিয়ো। প্রথম পর্বে রাশিয়ান দলটির সাথে  ৪-০ গোলে জিতেছিল চেলসি।

একই সঙ্গে গ্রুপের শীর্ষে থাকার নিশ্চিত হয়েছিল আগেই। প্রিমিয়ার লিগে গত শনিবার লিডস ইউনাইটেডের বিপক্ষে ৩-১ গোলে জেতা ম্যাচের দলে তাই ১০টি পরিবর্তন আনেন চেলসির কোচ ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ড। গত অক্টোবরের পর প্রথমবার দলটির হয়ে গোলপোস্টের নিচে দাঁড়ান কেপা আরিসাবালাগা। ২৪ তম মিনিটে গোল খেয়ে বসে তারা। ডি-বক্সে সতীর্থের পাসে ডান পায়ের শটের কারনে ক্রাসনোদারকে এগিয়ে নেন ফরাসি মিডফিল্ডার কাবেলা।

এর পরই অবশ্য চার মিনিটের  মাথায় স্পট কিকে দলকে সমতায় ফেরান জর্জিনিয়ো। প্রতিপক্ষের ডি-বক্সে ট্যামি আব্রাহাম ফাউলের শিকার হলে রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন ।আবার ৩০তম মিনিটের মাথায়  দলকে এগিয়ে নেওয়ার ভালো একটি সুবর্ণ সুযোগ হারান আব্রাহাম। কাই হার্ভাটজের থ্রু বল ধরে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি এই ইংলিশ ফরোয়ার্ড।অবশেষে চেলসি দ্বিতীয়ার্ধে একের পর এক আক্রমণ করতেই থাকে । ৬৬তম মিনিটে আব্রাহামের শট দারুণ দক্ষতায় ফিরিয়ে দেন সফরকারী এই গোলরক্ষক। একটু পর এমেরসনের ক্রসে হেডের লক্ষ্য  রাখতে পারেননি আব্রাহাম।

অবশেষে খেলার শেষ পর্যায়ের দিকে টিমো ভেরনার, অলিভিয়ে জিরুদ বদলি নেমেও খেলার ব্যবধান গড়ে নিতে পারেননি তারা। একই সময়ে হওয়া অন্য ম্যাচে ফরাসি দল রেনকে ৩-১ গোলে হারিয়ে  চার জয় ও  এক ড্রয় নিয়ে ১৩ পয়েন্ট আছে স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়া। আর অপরদিকে  রেনের ১ পয়েন্ট। প্রথম ও শেষ রাউন্ডে ড্রয়ের মাঝে টানা চার ম্যাচে জেতা চেলসি গ্রুপ পর্ব শেষ করল ১৪ পয়েন্ট নিয়ে  আর  ক্রাসনোদারের  ৫ পয়েন্ট ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.