আবারও পিছিয়ে গেল দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ওয়ানডে

৭ ডিসেম্বরের ম্যাচটি পিছিয়ে যাওয়ার কারণ ইংল্যান্ডের দুই ক্রিকেটারের করোনার লক্ষণ দেখা দিয়েছে এবং তারা করোনা আক্রান্ত হলেও তা অজানা থেকে গিয়েছে এমন আশঙ্কা করা হয়েছে। ইতোমধ্যে তাদের আবার পরীক্ষা করতে পাঠানো হলেও ফলাফল তখনো হাতে না পাওয়ায় সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি স্থগিত করা হয়েছে এবং সেই দুই ক্রিকেটারের ফলাফল হাতে পাওয়ার অপেক্ষা করা হচ্ছে।

তবে আগের দুই দিনের মতো ম্যাচের ঠিক আগ মুহূর্তে নয়, এবার একটু আগেভাগেই জানানো হয়েছে এই সিদ্ধান্ত। এবার ইংল্যান্ডের দুইজন ক্রিকেটারের করোনা শঙ্কা নিয়ে পিছিয়ে গেল ম্যাচটি। এই ওয়ানডে সিরিজ মাঠে গড়ানো নিয়ে অনিশ্চয়তা তাতে বাড়ল আরও। বৃহস্পতিবারই দক্ষিণ আফ্রিকা ছাড়ার কথা ছিল  ইংল্যান্ড দলের।

ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা অবশ্য এখনই দ্বিতীয় ওয়ানডে বাতিল করে দিচ্ছে না। সিরিজ হওয়ার আশাও তারা ছাড়ছে না। মঙ্গলবার ও বুধবার দুটি ম্যাচ আয়োজনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তারা।

ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড সিদ্ধান্ত নিয়েছে দুই বোর্ড একসাথে বসে আলোচনা করে সিরিজের বাকি দুটি ওয়ানডে ম্যাচের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিবে। তবে কোনো ঝুঁকি নিয়ে যে ম্যাচ আয়োজন হবে না সেটা বলাবাহুল্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.