আইসিইউতে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হয়নি

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গত ২৭ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নিজ বাসভবনে আইসোলেশনে থাকেন। এই সময় তিনি বাসা থেকেই সকল কাজ করেন। গত শুক্রবার করোনা সম্পর্কিত বৈঠকে তিনি দূর থেকেই অংশগ্রহণ করেন। পরবর্তীতে অবস্থার অবনতি হলে তাকে ৫ এপ্রিল রোববার লন্ডনের সেন্ট থমাস নামক হাসপাতালে নেয়া হয়।

বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা অনুযায়ী তাকে আইসিইউতে রাখা হয়। জানা যায়, তিনি এখন আগের তুলনায় সুস্থ আছেন। ৫৫ বছর বয়সী প্রধানমন্ত্রী এখন পর্যন্ত নিজে থেকে শ্বাস নিতে পারায় তাকে ভেন্টিলেটর লাগানোর প্রয়োজন হয় নি। শুধুমাত্র অক্সিজেনের সাহায্যে চিকিৎসা চলছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর যাবতীয় চিকিৎসার দায়িত্ব পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাবকে দেয়া হয়েছে। এদিকে রানী এলিজাবেথ তার বাসভবন বাকিংহাম থেকে বলেছেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর খোজ খবর নিচ্ছেন।

এখন পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে মহামারী করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫২ হাজারের উপর। এর মধ্যে ২৮৪ জন সুস্থ হয়ে উঠেন। তবে মৃতের সংখ্যা ৫ হাজার ৩৭৩। বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় যুক্তরাজ্যে সবকটি হাসপাতালে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। খুব জরুরী অবস্থায় রোগীদের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভেন্টিলেশনের মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।